ঢাকা রবিবার, ১৯শে মে ২০২৪, ৬ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১


নতুন প্রজন্মের নেতৃত্বেই গড়ে উঠবে স্মার্ট বাংলাদেশ


২০ আগস্ট ২০২৩ ০৭:৩৫

আপডেট:
১৯ মে ২০২৪ ১৩:১০

নতুন প্রজন্মের নেতৃত্বেই গড়ে উঠবে স্মার্ট বাংলাদেশ

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন বলেছেন, ‘মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতি, দেশের প্রতি তাদের আত্মদানের স্মৃতি ভবিষ্যত প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে হবে। স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে নতুন প্রজন্মকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। নতুন প্রজন্মের নেতৃত্বেই গড়ে উঠবে স্মার্ট বাংলাদেশ।   এ ছাড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে মতবিনিময় সভার আয়োজন করতে হবে।’ এ সময় তিনি ২০৪১ সালের উন্নত সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থীদের কঠোর পরিশ্রম করার পরামর্শ দেন।

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে চিরদিন ঋণী। আমি চাই ঢাকায় যত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আছে সেখানে বীর মুক্তিযোদ্ধারা পর্যায়ক্রমে যাবেন। সেখানে গিয়ে ছাত্র ছাত্রীদের তাদের সেই মুক্তিযুদ্ধের দিনের কথা বলবেন। যাতে বর্তমান জেনারেশন জানতে পারে কীভাবে দেশ স্বাধীন হয়েছে। তাহলে নতুন প্রজন্মরা কত কষ্টের পর দেশ স্বাধীন হয়েছে সেটা বুঝতে এবং জানতে পারবে।

এ সময় মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে চিরদিন ঋণী। এই ঋণ শোধ করা কোনো দিন সম্ভব না।

তিনি বলেন, প্রয়োজনে এই বিষয়ে আমি শিক্ষা সচিব ও শিক্ষা মন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবো। যাতে মুক্তিযুদ্ধারা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে তাদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানাতে পারেন।

বাংলাদেশ অনুন্নেতের আতুর ঘর ছিল জানিয়ে তিনি বলেন, আজ দেশে উন্নত হয়েছে। সব ক্ষেত্রে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আগামীতে দেশ আরও এগিয়ে যাবে। ২০৪১ সালের উন্নত সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থীদের কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে ভূমিকা রাখবে।

শনিবার বিকেলে রাজধানীর ইস্কাটন বিয়াম ফাউন্ডেশন মিলনায়তনে স্বাধীন বাংলার স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০২৩ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেন ঢাকা জেলা প্রশাসন।

আলোচনা সভা শেষে ১৫ আগস্ট ১৯৭৫ সনে শাহাদাৎ বরণকারী সকলের আত্মার রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। এতে জেলা প্রশাসনের সকল স্তরের কর্মকর্তা—কর্মচারী, জেলার অন্যান্য দপ্তরের দপ্তর প্রধান, ঢাকা জেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্র শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকা জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমানের সভাপতিত্ব আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিয়াম ফাউন্ডেশন মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব)মাহবুব উল- আলম, ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার সাবিরুল ইসলাম। এ ছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মো: আসাদুজ্জামান।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৯ সালে আমাদের স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্রমুক্ত মধ্যম আয়ের ডিজিটাল বাংলাদেশ। প্রধানমন্ত্রীর সেই স্বপ্ন আজ অর্জিত হয়েছে। তিনি আমাদের নতুন স্বপ্ন দেখিয়েছেন ২০৪১ এর উন্নত স্বপ্নের সোনার বাংলার। তবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী অপশক্তিরা এখনো আমাদের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করার জন্য নিরন্তর অপপ্রয়াসে লিপ্ত। এই অপশক্তির চক্রান্ত থেকে জাতিকে সাবধান হতে হবে। শোককে শক্তিতে রুপান্তর করে এগিয়ে যেতে হবে প্রধানমন্ত্রীর দেখানো অগ্রযাত্রার পথে।