ঢাকা শুক্রবার, ১৯শে এপ্রিল ২০২৪, ৭ই বৈশাখ ১৪৩১


মঙ্গলবার থেকে আ’লীগের চিঠি পাবেন চূড়ান্ত প্রার্থীরা


১৯ নভেম্বর ২০১৮ ১৮:৩০

আপডেট:
১৯ এপ্রিল ২০২৪ ০৭:৫৩

ঢাকা: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চূড়ান্ত প্রার্থীদের মঙ্গলবার থেকে চিঠি দেবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। চূড়ান্ত প্রার্থীদের উদ্দেশে চিঠি ইস্যুর করতে রোববার (১৮ নভেম্বর) থেকে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে কাজ শুরু করেছেন দলটির দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ।

আওয়ামী লীগের একাধিক সূত্র আমাদের দিনকে জানান, আজ (সোমবার) সন্ধ্যা ৭টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে সংসদীয় বোর্ডের শেষ সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় বাকি প্রার্থীদের মনোনয়ন তালিকা চূড়ান্ত করা হবে।

সূত্র আরও জানায়, ইতোমধ্যে অনুষ্ঠিত সংসদীয় বোর্ডের সভায় চূড়ান্ত প্রার্থীদের তালিকা দফতর সম্পাদকের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। অতি গোপনীয়তার সঙ্গে দলের দফতর সম্পাদক সার্বিক কাজ শেষ করে সোমবার সংসদীয় বোর্ডের সভাপিত শেখ হাসিনার স্বাক্ষর নেবেন। এরপর মনোনীত প্রার্থীদের কাছে চিঠি পাঠানো হবে।

আরও পড়ুন: ভোট: ৭০ আসনে বিশেষ হিসাব কষছে আওয়ামী লীগ

এদিকে গত কয়েকদিন সংসদীয় সভায় রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, রংপুর, ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগে দলীয় প্রার্থীদের তালিকা চূড়ান্ত করে আওয়ামী লীগ। সোমবার চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের নৌকার প্রার্থীদের তালিকা চূড়ান্ত করা হবে। মনোনীত প্রার্থীদের চিঠি ইস্যুর বিষয়টি সম্পন্ন হওয়ার পর শরিক ও মহাজোটের আসনগুলো বাদে দলীয় প্রার্থীদের নামের তালিকা একযোগে ঘোষণা করা হবে।

গত শুক্রবার ও শনিবার প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে প্রধানমন্ত্রী ও সংসদীয় দলের সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সংসদীয় বোর্ডেও বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন হেভিওয়েট নেতা এবার দলের মনোনয়নের তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন বলে জানা গেছে। এছাড়াও বর্তমান এমপিদের মধ্যেও বাদ পড়েছেন অনেকে। আবার কয়েকজন নতুন মুখও রয়েছেন তালিকায়। আগামী ২৫ থেকে ২৬ নভেম্বরের মধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে তিনশ’ আসনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করার প্রস্তুতি রয়েছে আওয়ামী লীগের।

শনিবার রাজধানীর একটি হোটেলে এক সেমিনারে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, আজকালের মধ্যে আওয়ামী লীগ ৩০০ আসনের মনোনয়ন চূড়ান্ত করবে। শরিকদের ৬৫ থেকে ৭০টি আসন দেওয়া হবে। শরিক দলের প্রার্থী যদি বিজয় নিশ্চিত করতে পারে তাহলে সেসব আসন ছেড়ে দেবে আওয়ামী লীগ।