ঢাকা বুধবার, ৭ই ডিসেম্বর ২০২২, ২৩শে অগ্রহায়ণ ১৪২৯


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংখ্যালঘুদের সবচেয়ে আপনজন : এমপি মোজাফফর


৫ অক্টোবর ২০২২ ০৯:৪৪

আপডেট:
৭ ডিসেম্বর ২০২২ ০০:১৪

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গা পূজা উপলক্ষে বিভিন্ন পূজা মন্ডবের নেতৃবৃন্দের কাছে আর্থিক অনুদান প্রদান করার সময়

জামালপুর সদর আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ইঞ্জিনিয়ার মোজাফফর হোসেন বলেছেন, সাম্প্রদায়িক অপশক্তি, দুষ্কৃতিকারীরা হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা লাগাতে চায়। তারা দেশের সব অর্জন ম্লান করতে অপচেষ্টায় লিপ্ত। ঐক্যবদ্ধ হয়ে ষড়যন্ত্রকারীদের কঠোরভাবে প্রতিহত করতে হবে। মুসলিম-হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান সবাই মিলেমিশে কাজ করছে বলেই আজ আমরা উন্নয়নের রোল মডেল।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গা পূজা উপলক্ষে বিভিন্ন পূজা মন্ডবের নেতৃবৃন্দের কাছে আর্থিক অনুদান প্রদান করার সময় তিনি একথা বলেন।

এসময় তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকারের সময়ে সংখ্যালঘুরা সবচেয়ে সুখে ও শান্তিতে আছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংখ্যালঘুদের সবচেয়ে আপনজন। ‘৭৫ পরবর্তী সংখ্যালঘু বান্ধব সরকার হল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার। এই সরকারের আমলে সংখ্যালঘুরা সুখে ও শান্তিতে আছে। কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটতেই পারে। সবচেয়ে বড় কথা হল শেখ হাসিনা সংখ্যালঘুদের সবচেয়ে আপনজন’। তিনি আরও বলেন, উন্নয়নের অগ্রযাত্রা থামাতে একটি মহল ধর্মকে ব্যবহার করে মানুষের অনুভূতি নিয়ে খেলা শুরু করেছে।

এমপি মোজাফফর বলেন, ধর্মীয় অনুশাসন সঠিকভাবে মেনে না চলায় যুবসমাজে মাদকাসক্তের সংখ্যা দিন দিন আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েই চলেছে। তরুণ সমাজের বহু মেধাবী ও সম্ভাবনাময় প্রতিভা মাদকের নেশার কবলে পড়ে ধর্মীয় মূল্যবোধ এবং নৈতিকতা বিসর্জন দিয়ে সামাজিক অবক্ষয়ের পথ বেছে নিয়েছে। একমাত্র যথাযথ ধর্মীয় অনুশাসনের মাধ্যমেই মাদকাসক্তি নির্মূল করা সম্ভব।